স্বর্ণমন্দিরের জৌলুস বাড়াতে গলানো হচ্ছে আরও ১৬০ কেজি স্বর্ণ!

Jul 17, 2018 11:00 am

স্বর্ণমন্দিরের জৌলুস বাড়াতে গলানো হচ্ছে আরও ১৬০ কেজি স্বর্ণ!

ভারতের শিখদের প্রধান তীর্থস্থান অমৃতসরের স্বর্ণমন্দিরের জৌলুস বাড়াতে যুক্ত করা হচ্ছে আরও ১৬০ কেজি স্বর্ণ। চার ফটকের ওপরের গম্বুজের উজ্জলতা বাড়াতে এ স্বর্ণের দাম ধরা হয়েছে প্রায় ৫০ কোটি রুপি। হিন্দুস্তান টাইমসের সংবাদ।

মন্দিরের পরিচালনা সংগঠনের এক মুখপাত্র দিলজিত সিং বেদি জানান, সর্বজনের জন্য মন্দির উম্মুক্ত এটা বুঝাতে প্রতীকী অর্থে চার ফটকের গম্বুজের স্বর্ণের প্লেট দ্বারা রাঙ্গিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, চার ফটকের প্রতিটি গম্বুজের জন্য ৪০ কেজি করে স্বর্ণ ব্যবহার করা হবে। এর মধ্যে একটি ফটকের গম্বুজে স্বেচ্ছাসেবা ভিত্তিতে স্বর্ণ লাগানোর কাজ শেষ হয়ে গেছে।

প্রসঙ্গত, ১৯২ বছর আগে শিখ শাসক মহারাজ রণজিৎ সিং এর টাকায় এ মন্দিরের জন্য প্রথম স্বর্ণ কেনা হয়। তিনি ১৬ লাখ রুপি দান করেছিলেন এর জন্য। মোহাম্মদ খান নামের এক মুসলিম স্বর্ণকার এ মন্দিরে প্রথম স্বর্ণ লাগানোর কাজ শুরু করেন।


পরবর্তীতে রণজিৎ সিং এর স্ত্রী ও উত্তরাধিকারী এবং অন্যান্য ধনবান শিখ অনুসারীরা এ মন্দিরে স্বর্ণ ব্যবহারে অর্থ দান করেন। মন্দিরের ইতিহাস সূত্রে জানা গেছে, সেসময় স্বর্ণ ব্যবহার করতে ৬৪ লাখেরও বেশি অর্থ খরচ করা হয়।

১৯৮৪ সালের অপারেশন ব্লুস্টারের সময় ক্ষতিগ্রস্ত হলে কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেয় যে মন্দিরটি সংস্কার করা হবে। এরপর গুরুনানক নিষ্কাম সেবক এবং যুক্তরাজ্যের শিখ সম্প্রদায়সহ অন্যান্য সংগঠনের উদ্যোগে এর জন্য অর্থ সংগ্রহ শুরু করা হয়। ১৯৯৫ সালে মন্দির সংস্কারের কাজ শুরু হয়ে ১৯৯৯ সালে শেষ হয়। এরপর ফটকের গম্বুজে স্বর্ণ লাগানো মাধ্যমে নতুন পরিবর্তন আসল মন্দিরটিতে।